মুভির নাম : Harry Potter and the goblet of fire (2005)

মুভির নাম : Harry Potter and the goblet of fire (2005) ৪র্থ পর্ব

Genre : Adventure|Family|Fantasy

IMDB :7.7

||

Prisoner of azkaban এর মীমাংসার পর এ পর্বে মুভির শুরুতে দেখা যায় হ্যারি আর হারমনি তাদের বন্ধু রনের বাসায় বেড়াতে যায়। স্কুল শুরুর আগে তাদের এখানে আসার মূল কারন সরাসরি আন্তর্জাতিক কুইডিচ টুর্নামেন্ট দেখা। ফাইনালের দিন রাতেই হঠাৎ করে ডেথ ইটাররা দর্শকদের উপর আক্রমন চালায়।

ডেথ ইটার হলো ভল্ডামরর্টের অনুসারী, যারা কালো জাদু চর্চা করে। আক্রমন শেষে তারা চলে গেলে রাতের আকাশে ভেসে উঠে ডার্ক মার্ক। যা ভোল্ডেমর্ট এর ফিরে আসার চিহ্ন। সবাই ভীত বিহ্বল হয়ে পড়ে।

এরই মধ্যে হ্যারি আর তার বন্ধুরা হগওয়ার্টসে তাদের ৪র্থ শিক্ষা বছর শুরু করতে যায়। নতুন বছরে তাদের কালো জাদুর প্রতিরক্ষার বিষয়ে নতুন শিক্ষক নেয়া হয় যে ম্যাড আই মুডি নামে পরিচিত। এর সাথে আরও দেখা যায় স্কুলে তখন তখন সাজ সাজ রব। সে বছর হগওয়ার্টস ট্রাই উইজার্ড টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে। ইউরোপের সেরা তিন স্কুলের তিনজন বাছাইকৃত ছাত্র-ছাত্রীর মধ্যে তাদের জাদু বিদ্যার পারদর্শীতার মাধ্যমে এই টুর্নামেন্ট এগিয়ে চলে। যে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকে সে এবং তার স্কুল চ্যাম্পিয়ন হয়।

হ্যারি ভল্ডামর্টকে নিয়ে দুঃস্বপ্ন দেখা শুরু করে যা প্রায় প্রতি রাতেই ঘুম থেকে উঠতে বাধ্য করতে থাকে। বেশ কয়েকদিন পর সিলেকশন এর দিন তিন স্কুলের তিনজন ছাত্রের নাম ঘোষনা করা হয়। হঠাৎ অদ্ভুত এক ঘটনা ঘটে, যে ট্রাই উইজার্ড কাপের মধ্য দিয়ে তিনজন বিজয়ীর নাম উঠেছিল সেই কাপটি হঠাৎ আলোকিত হয়ে উঠে। তার মধ্যে থেকে তখন ৪র্থ আরেকটি নাম উঠে আসে যেটিতে হ্যারির নাম লেখা ছিল। সবাই স্তব্ধ হয়ে যায়। সবাই হ্যারির আসন্ন বিপদ সম্পর্কে বিচলিত হয়। টুর্নামেন্টে টিকে থাকার জন্য অনেক উন্নত জাদু জানতে হয়, যেখানে হ্যারি মাত্র ৪ বছর ধরে জাদু শিখছে। তবুও সে তার বন্ধুদের সহায়তায় সব রাউন্ডে সফলতার পরিচয় দেয়। এই উত্তেজনার মধ্যেও সে নিয়মিত ভল্ডামর্টের দুঃস্বপ্ন দেখতে থাকে। অবশেষে আসে ফাইনাল রাউন্ড যেখানে টিকে থাকাই সবচেয়ে কঠিন। ৪ জনের মধ্যে ২ জন দ্রুতই রিটায়ার  করে। অতঃপর শুধু টিকে থাকে হ্যারি আর তার স্কুলের আরেক ছাত্র সেডরিক ডিগরি। ঘটনাক্রমে ২ জনই একসাথে কাপটা দেখতে পায়। কিন্তু কাপটার অধিকারীতো শুধু একজনই হবে। অন্যদিকে ফিরে আসার ইঙ্গিত দেয়া ভল্ডামর্টের পুনরজ্জীবনের কথা ভুলে গেলেও চলবেনা।

এবার Warner Bros তাদের আগের নিয়মের ব্যতিক্রম করে মুভিটি সারা বিশ্বে একযোগে মুক্তি দেয়। ১৫০ মিলিওন ডলার বাজেটের ছবিটি সারা বিশ্বে মুক্তি দেয়া হয় ১৮ই নভেম্বর,২০০৫ এ। সিরিজের অন্য মুভিগুলোর মতই এটিও মুক্তি পেয়েই ভাঙ্গা শুরু করে একের পর এক বক্স অফিস রেকর্ড। আমেরিকার বক্স অফিসে মুক্তির ৫ দিনের মধ্যেই এটি ১০২ মিলিওন মার্কিন ডলার আয় করে অনন্য এক রেকর্ড করে বসে। এছাড়াও মুভিটি মোট ৮৯৭ মিলিওন মার্কিন ডলার আয় করে ২০০৫ সালের সর্ব্বোচ আয়ের মুভিতে পরিনত হয়। এরই মাধ্যমে মুভিটি ২০০৫ সাল পর্যন্ত সারা বিশ্বের সেরা ৮ টি সর্ব্বোচ আয়ের মুভির লিস্টে নাম লেখায়। আর এখনও পর্যন্ত এটি সারা বিশ্বে ২১তম Highest Grossing ফিল্ম। অন্যদিকে হ্যারি পটার সিরিজে আয়ের দিক থেকে এর অবস্থান ৬ষ্ঠ। সেরা আর্ট ডিজাইনের জন্য লাভ করে অস্কার। আর হ্যারি পটার সিরিজের একমাত্র মুভি হিসাবে অর্জন করে BAFTA সেরা প্রোডাকশন ডিজাইন পুরষ্কার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.